October 15, 2021, 8:38 pm

শিরোনাম
চাকরিজীবীরা একে অপরকে বিয়ে করতে পারবে না,সাংসদ বাবলুর প্রস্তাব বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে ১১-২০ গ্রেডের সরকারি চাকুরিজীবীদের দোয়া ও তাবারক বিতরণ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬- তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া অনুষ্ঠান। পিরোজপুর সদর উপজেলা জেলা সেভ দ্য ফিউচার ফাউন্ডেশন এর পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা শোকের মাসে সৌদি প্রবাসীদের দূতাবাসের বিশেষ সেবা প্রদান করা হবে- রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদ থেকে, সামাজিক সংগঠন এমিনেন্ট বয়েজ কে কাভিট ইকুপমেন্ট প্রদান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরের জন্য ঘুষ না দেওয়ায় মারপিট! ইন্দুরকানীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের -২৭ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত! ছাত্রদল নেতা সিরাজ এখনো বয়ে বেড়ান তার সেই ভয়াবহ গুলির স্মৃতি পিরোজপুর সদরে ভূইফোঁড় সাংবাদিক ও মানবাধিকার নেতার ছড়াছড়ি।

পিরোজপুরে যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশের ৪৭তম পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়।

দেশে আরও একটি সরকারি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে। এটি দক্ষিণের জেলা পিরোজপুরে স্থাপিত হবে। নাম দেওয়া হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়’। বিশ্ববিদ্যালয়টি স্থাপনের নীতিগত অনুমোদন দিতে ২০১৯ সালের ২৭ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের কাছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এর যৌক্তিকতা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে একই বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় পিরোজপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা যেতে পারে বলে সায় দেয়। এ লক্ষ্যে ‘পিরোজপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ২০২০’-এর খসড়া প্রণয়ন করেছে সরকার। বর্তমানে দেশে ৪৬টি সরকারি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এটি প্রতিষ্ঠিত হলে মোট ৪৭টি সরকারি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভার বৈঠকে  সোমবার (১১ জানুয়ারি) এই অনুমোদন দেওয়া হয়। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রীরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন।

এরপর বেলা দেড়টার দিকে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকের বিষয়ে ব্রিফিং করেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, দক্ষিণাঞ্চলের জেলা পিরোজপুরে বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও শিক্ষা গবেষণার বিস্তার ঘটাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেন। প্রস্তাবিত পিরোজপুরে এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হলে এ অঞ্চলসহ আশপাশের জেলায় উচ্চশিক্ষার দ্বার উন্মোচিত হবে। আইনটি পাস হলে জমি অধিগ্রহণসহ অন্যান্য কার্যক্রমও শুরু হবে। পিরোজপুরে পছন্দসই যে কোনো জায়গায় বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা হবে।

জানা গেছে, পিরোজপুরে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গ্রিন সিগন্যালের পরপরই শিক্ষা মন্ত্রণালয় কার্যক্রম শুরু করে। এরই অংশ হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) আইনের খসড়া তৈরি করে তা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়। আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা করে সবার মতামতও নেওয়া হয়।

আইনের খসড়ায় বলা হয়েছে, এ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন বিষয়ে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষা, গবেষণা ও প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি খাতে উদ্ভাবনী সুযোগ সৃষ্টি, সহায়তা ও উৎসাহ প্রদান ইত্যাদি ব্যবস্থা থাকবে। অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো এই বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয়েও চ্যান্সেলর, ভাইস চ্যান্সেলর, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর এবং অন্যান্য কর্মকর্তা থাকবেন। সিন্ডিকেট, একাডেমিক কাউন্সিল ও অন্যান্য সংস্থা নির্ধারণেরও কথা বলা হয়েছে খসড়ায়। বিশেষায়িত এ বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ভিজিটিং অধ্যাপক, ইমেরিটাস অধ্যাপক, পরামর্শক, গবেষণা সহকারী, স্কলার বা অন্য কোনো ব্যক্তিকে বিভিন্ন বাছাই বোর্ডের মাধ্যমে নিয়োগ করা যাবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares