January 16, 2021, 12:12 pm

শিরোনাম
সাবেক স্ত্রী অপুর সঙ্গে আবারো এক হচ্ছেন শাকিব ১৪ ই জানুয়ারী মডেল অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা জামান এর জন্মদিন ‘প্রবাসীদের সেবার মান বাড়াতে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে’ বাগেরহাট জেলার ইউপি চেয়ারম্যানেরর বিরুদ্ধে ধর্ষনচেষ্টা মামলা ও প্রতিবাদ মিছিল। পিরোজপুরে যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশের ৪৭তম পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়। রাঘববোয়ালের মুখে চুনোপুঁটির গল্প মানায় না মেয়র তাপসকে সাঈদ খোকন সেভ দ্য ফিউচার ফাউন্ডেশন পিরোজপুর শাখা কমিটির শীতবস্ত্র বিতরণ। প্রবাসীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নানা পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৫০ হাজার টাকা মুচলেকা ও প্রতি মঙ্গলবার আদালতে হাজিরা দেয়ার শর্তে ইরফান সেলিমের জামিন আমার প্রেমিক-ভাগ্য খুব খারাপ-নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন

রাঘববোয়ালের মুখে চুনোপুঁটির গল্প মানায় না মেয়র তাপসকে সাঈদ খোকন

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কর্তৃক পরিচালিত অবৈধ দোকানদারদের উচ্ছেদে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসনের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী ও তাদের পরিবারের সদস্যরা। শনিবার (৯ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় হাইকোর্ট এলাকার কদম ফোয়ারার সামনে মানববন্ধন শুরু হয়। সেখানে দক্ষিণ সিটির সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনও অংশ নেন।

লিখিত বক্তব্যে সাঈদ খোকন বলেন, ‘দক্ষিণ সিটির বর্তমান মেয়র ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস তার পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন। মেয়র তাপস দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে গলাবাজি করে চলেছেন। আমি তাকে বলব, রাঘব-বোয়ালদের মুখে চুনোপুঁটির গল্প মানায় না। দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়তে হলে সর্বপ্রথম নিজেকে দুর্নীতিমুক্ত হতে হবে। তারপর চুনোপুঁটির দিকে দৃষ্টি দিতে হবে।’

বর্তমান মেয়র তাপসের দুর্নীতির কথা উল্লেখ করে সাবেক মেয়র বলেন, ‘ফজলে নূর তাপস দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের শত শত কোটি টাকা তার নিজ মালিকানাধীন মধুমতি ব্যাংকে হস্তান্তরিত করেছেন এবং এই শত শত কোটি টাকা বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করার মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা লাভ হিসেবে গ্রহণ করেছেন এবং করছেন। অপরদিকে অর্থের অভাবে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের গরিব কর্মচারীরা মাসের পর মাস বেতন পাচ্ছেন না। সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প অর্থের অভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। এ ধরনের কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে মেয়র তাপস সিটি করপোরেশন আইন ২০০৯ ২য় ভাগের ২য় অধ্যায়ের অনুচ্ছেদ ৯ (২) (জ) অনুযায়ী মেয়র পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন।’

সাঈদ খোকন কমসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে এসব দোকানের বৈধতা দিয়েছিলেন জানিয়ে বলেন, ‘ফুলবাড়িয়াসহ গুলিস্তান এলাকার বিভিন্ন দোকানদারদের বৈধতা দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করার সুযোগ করে দেওয়াই ছিল আমার লক্ষ্য। ফুলবাড়িয়া মার্কেটে যে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে আমি আগেও বলেছি, এটা সম্পূর্ণভাবে অবৈধ। কারণ আদালত কর্তৃক নির্দেশিত হয়ে, ব্যবসায়ীদের বৈধকরণের আবেদন নিষ্পত্তির লক্ষ্যে আমরা করপোরেশনের বোর্ড সভায় সর্বসম্মতিক্রমে আলোচিত মার্কেটগুলোর নকশা সংশোধন, বকেয়া ভাড়া আদায়সাপেক্ষে বৈধ ব্যবসা পরিচালনার অনুমতি প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি। বোর্ড সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক সিটি করপোরেশনের প্রকৌশল বিভাগ নকশা সংশোধন করে এবং রাজস্ব বিভাগ সাত-আট বছরের বকেয়া ভাড়া আদায় করে ব্যবসায়ীদের বৈধভাবে ব্যবসা পরিচালনা করার অনুমতি প্রদান করে।’

উচ্ছেদকে অবৈধ উল্লেখ করে ব্যবসায়ীদের পুনর্বাসনের দাবি জানিয়ে সাঈদ খোকন বলেন, ‘বিনা নোটিশে বুলডোজার দিয়ে হাজার হাজার বৈধ দোকান গুঁড়িয়ে দেওয়ায় তাদের স্বপ্ন পথে বসে গেল। বর্তমান একগুঁয়ে নগর প্রশাসন কোনো যৌক্তিক নাগরিকের দাবির তোয়াক্কা করে না। আমি ঢাকা দক্ষিণ সিটির সাবেক মেয়র হিসেবে এই অবৈধ উচ্ছেদের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। একই সঙ্গে আল্লাহর পরে আমাদের আশা-ভরসার শেষ স্থান প্রধানমন্ত্রীর কাছে এই নিঃস্ব ও অসহায় বৈধ ব্যবসায়ীদের পুনর্বাসনের আবেদন জানাচ্ছি।’

অভিযোগ রয়েছে, মূলত সাঈদ খোকনের আমলেই অবৈধভাবে দোকানগুলো বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল। এ ছাড়া মানববন্ধনে বর্তমান মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের নাম উল্লেখ করে আক্রমণাত্মক ভাষায় বিভিন্ন প্লাকার্ড নিয়ে বেশকিছু অল্প বয়স্ক তরুণকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে।

 

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares