August 2, 2021, 9:38 am

শিরোনাম
শোকের মাসে সৌদি প্রবাসীদের দূতাবাসের বিশেষ সেবা প্রদান করা হবে- রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদ থেকে, সামাজিক সংগঠন এমিনেন্ট বয়েজ কে কাভিট ইকুপমেন্ট প্রদান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরের জন্য ঘুষ না দেওয়ায় মারপিট! ইন্দুরকানীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের -২৭ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত! ছাত্রদল নেতা সিরাজ এখনো বয়ে বেড়ান তার সেই ভয়াবহ গুলির স্মৃতি পিরোজপুর সদরে ভূইফোঁড় সাংবাদিক ও মানবাধিকার নেতার ছড়াছড়ি। বহুরূপী হেলেনা জাহাঙ্গীর এর নতুন রাজনৈতিক দোকান আওয়ামী চাকুরিজীবী লীগ। পিরোজপুরে দলীয় বিদ্রোহীদের প্রভাবে দিশেহারা আ’লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীরা ফের বিয়ে করেছেন রেলমন্ত্রী, পাত্রী দিনাজপুরের মেয়ে সেভ দ্যা ফিউচার ফাউণ্ডেশন পিরোজপুর জেলা কমিটির কেন্দ্রের অনুমোদন

আমার প্রেমিক-ভাগ্য খুব খারাপ-নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন

করোনাভাইরাস কারণে লকডাউনে থাকতে হচ্ছে বলে প্রেমিক হারিয়েছেন বাংলাদেশ থেকে নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। এমন দাবি করে তিনি বুধবার তার ভেরিফায়েড ফেইসবুক পেজে পোস্ট করেন। তসলিমা নাসরিন এ ঘটনার কথা উল্লেখ করেলও প্রেমিকের নাম জানাননি। এর আগেও তার এ প্রেম বিষয়ে কিছু উল্লেখ করেননি। পোস্টে তিনি লেখেন, ‘আমার প্রেমিক-ভাগ্য খুব খারাপ। একটা যেন তেন প্রেমিক ছিল, সেটিকে লকডাউনের পর বিদেয় করতে হয়েছে। আমি ঘর থেকে বেরোচ্ছি না, এ তার সইছিল না। সে তার চাকরি করতে বাইরে বেরোচ্ছে, অথচ আমি ঘরে বসে দিব্যি কোভিড এড়িয়ে চলছি, আমার জীবনকে কেন আমি তার জীবনের চেয়েও মূল্যবান ভাবছি! আমি বলেছি, আমি যেহেতু বাইরে চাকরি ব্যবসা ইত্যাদি করছি না, আমার বাইরে বেরোনোর দরকার পড়ছে না। আর আমি যদি ঘরে থেকে কোভিড এড়াতে পারি তার তো খুশি হওয়ার কথা, কিন্তু এত সে অখুশি কেন। কেন আমি তার সঙ্গে দেখা করছি না। বলেছি ভ্যাক্সিনের আগে দেখা সাক্ষাৎ কারও সঙ্গেই করব না। আমার সঙ্গেও না?  না তোমার সঙ্গেও না। রেগে আগুন হয়ে গেল। সে আগুন আমি আর নেভাতে চাইনি।

প্রেম করার জন্য দেশে হোক, বিদেশে হোক, এমন সব অযোগ্য অপদার্থ লোক আমি বেছেছি, এখন ভাবলে নিজের ওপরই রাগ হয়। আমি বেছেছি বলাটা ঠিক হবে না, আমি কাউকে বাছিনি। কেউ সামনে পড়েছে, আগ্রহ দেখিয়েছে, ফিরিয়ে দিলে কায়দা করে ভিড়েছে, তাদেরই সঙ্গে নিয়ে আমি পথ হেঁটেছি। প্রেমিক বলি তাদের, আসলে প্রেমিক কি কেউই ছিল? গভীর করে ভাবলে বুঝি, কেউই সত্যিকার প্রেমিক ছিল না। আমিই তাদের প্রেমিক ভেবে সুখ পেয়েছি। আমার ওই সুখটার হয়তো দরকার ছিল।’

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares