February 25, 2021, 2:55 am

শিরোনাম
বাংলাদেশ থেকে ১২ হাজার কর্মী নেবে সিঙ্গাপুর ও রোমানিয়া কৌশলে রেজিস্ট্রেশন করে টিকা নিচ্ছেন ৪০ বছরের কম বয়সীরাও! বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে ২৪ মে,আবাসিক হল ১৭ মে: শিক্ষামন্ত্রী পিরোজপুরে স্কুল শিক্ষিকার বাসা থেকে গৃহপরিচারিকার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার। “বকুলতলা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে অমর একুশের ভাষা শহিদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ ও পুষ্পস্তবক অর্পণ” ভাষা শহীদদের জন্য বায়তুল মোকাররমে দোয়া ও মোনাজাত বাগেরহাটে গাছে আমের মুকুলে ভরপুর স্বপ্ন বুনছেন চাষিরা। সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি সম্মেলন ২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে। অন্যের বউকে বিয়ে করেছেন ক্রিকেটার নাসির,সাবেক স্বামীকে তালাক না দিয়ে তামিমা তাম্মি বিয়ে করলেন নাসিরকে। দিনাজপুরে মুমূর্ষু রোগীর জীবন বাঁচাতে এগিয়ে এসেছে অনলাইন ব্লাড ব্যাংক হিলি

প্রবাসীদের নিয়ে কটূক্তিকারী সেই ওসি মুর্শিদ সহ ১১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে হত্যা চেষ্টা মামলা।

ফেনীর ছাগলনাইয়া থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এম মুর্শেদসহ ১১ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে। ক্রসফায়ারে হত্যার চেষ্টা ও ইয়াবা দিয়ে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগে মঙ্গলবার সকালে ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম কামরুল হাসানের আমলি আদালতে এই মামলা করা হয়।

মামলার বাদী পিকআপ ট্রাকের চালক মো. গিয়াস উদ্দিন দুলাল। তার বাড়ি ছাগলনাইয়ার পূর্ব পাঠানগড় গ্রামে।

মামলায় ১১জন পুলিশের সদস্যের বাইরে আরও দুই জনকে আসামি করা হয়। তারা পুলিশের সোর্স (তথ্যদাতা)।ফেনী জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) হাফেজ আহম্মদ মামলা হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী গিয়াস উদ্দিন নান্নু জানান, আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে তদন্তের জন্য পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দিয়েছেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদমর্যাদার কোনো কর্মকর্তাকে দিয়ে অভিযোগটি তদন্ত করে প্রতিবেদন আগামী ১৫ দিনের মধ্যে আদালতে জমা দিতে বলা হয়েছে।

সাবেক ওসি ছাড়া অন্য আসামিরা হলেন- ছাগলনাইয়া থানার সাবেক উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শহিদুল ইসলাম, মো. খোরশেদ আলম ও দেলোয়ার হোসেন, উপ সহকারী পরিদর্শক (এএসআই) মো. ফিরোজ আলম ও মো. মাহবুব আলম সরকার, কনস্টেবল সুকান্ত বড়ুয়া, সাবেক কনস্টেবল মো. মাঈন উদ্দিন, থানায় কর্মরত বর্তমান কনস্টেবল মো. নুরুল আমিন, মো. নুরুল আমিন ও মো. সিরাজুল ইসলাম এবং লিশের দুই সোর্স ছাগলনাইয়ার উপজেলার এলনা পাথর এলাকার আবুল হোসেনের দুই ছেলে আবুল হাসেম ও আবুল খায়ের ছোটন।

আরজিতে বলা হয়, আমি (গিয়াস উদ্দিন দুলাল) একজন পিকআপ চালক ছিলাম। গত বছরের ১৭ জানুয়ারি আমি ফেনী সদরের কাজীরবাগে মাটি বহন করছিলাম। সেদিন আবুল হাসেম ও আবুল খায়ের নামে পুলিশের দুই সোর্সসহ পুলিশ সদস্যরা এসে আমার কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন।

চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ওই দিন বিকেলে তারা কাজীরবাগ হতে আমাকে একটি মাইক্রোবাসে তুলে ছাগলনাইয়ার পাঠাননগর এলাকায় ব্রাদার্স ব্রিকফিল্ডে নিয়ে যান। সেখানে ওসি মুর্শেদ এসে আমার চোখ বেঁধে পুনরায় চাঁদা দাবি করেন।

চাঁদা দিতে না চাইলে তারা সবাই মিলে আমাকে ক্রসফায়ারে দেয়ার হুমকি দেন। খবর পেয়ে আমার মা ও বোন সেখানে ১ লাখ টাকা দেয়ার কথা বলেন। এতে রাজি না হয়ে তারা আমাকে চোখ বাঁধা অবস্থায় মাইক্রোবাসে তোলেন। পরে শুভপুর ইউনিয়নের বল্লভপুরে চম্পকনগর রাস্তায় মাথায় একটি জমিতে নিয়ে আমাকে মাটিতে ফেলে হত্যার চেষ্টা চালায়।

আরজিতে আরও বলা হয়, ওসি মুর্শেদ ঘটনাস্থলে থাকা সুকান্ত বড়ুয়া নামে এক পুলিশ সদস্যের শটগান দিয়ে আমার ডান পায়ে তিনটি গুলি করেন। আমি সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়লে মৃত্যু হয়েছে ভেবে তারা আমাকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। দেহে প্রাণের অস্তিত্ব টের পেয়ে চিকিৎসকরা আমাকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে পাঠান। এর তিনদিন পর চিকিৎসকরা অস্ত্রোপচার করে ডান পায়ের নিম্নাংশ কেটে বাদ দেন।

পরে থানার সাবেক উপপরিদর্শক মো. মাহবুবুল আলম সরকার ১৪শটি ইয়াবা উদ্ধার দেখিয়ে আমার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মিথ্যা মামলা (জিআর ১০/১৯) করেন। এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার সাবেক এসআই গত বছরের ২৭ জানুয়ারি আমার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

এ ব্যাপারে কথা বলার চেষ্টা করেও সাবেক ওসি মুর্শেদকে পাওয়া যায়নি।

এসআই মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা ওই দিন দুলালের কাছ থেকে মাদক উদ্ধারে গিয়ে শটগানের গুলি করেছিলাম। তার বিরুদ্ধে সাত-আটটি মামলা রয়েছে।’

এছাড়া  ওসি মোর্শেদ ২০১৯ সালের ২৩ জানুয়ারি ছাগলনাইয়া থানার হিছাছরা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বাল্য বিবাহ রোধ, মাদক, ইভটিজিং, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, মোবাইলের অপব্যবহার নিয়ে সচেতনতামূলক এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় ফেনীর ছাগলনাইয়া থানার ওসি এম এম মুর্শেদ পিপিএম বলেছিলেন তোমরা ‘বিদেশী কোন ছেলের সাথে নারীরা বিয়ে বসবে না’ তার এমন মন্তব্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড় তুলেছিলেন বিভিন্ন দেশে অবস্থানকারী প্রবাসী বাংলাদেশীরা।

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares