November 26, 2020, 11:57 pm

শিরোনাম
৪৪ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে বাংলাদেশির বিরুদ্ধে মামলা করলো ফেসবুক পিরোজপুর পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডবাসীর সকল নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে চায় মোঃ শাহজালাল শেখ। ভি বি ডি পিরোজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে রান্না করা খাবার বিতরণ। বঙ্গবন্ধু টি ২০ কাপে থিম সং নিয়ে শাহারিয়ার রাফাত, আয়েশা, ও প্রতীক হাসান সংস্কার হওয়া শ্রমিক আইনে ৮ শর্তে সৌদি প্রবাসীরা কফিলের অনুমতি ছাড়াই চাকরি পরিবর্তন করতে পারবেন! নির্বাচন নিয়ে আমাদের থেকে আমেরিকার অনেক কিছু শেখার আছে: সিইসি নুরুল হুদা আলোচিত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমকে বদলি পুলিশের সিনিয়র এএসপিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ জুম্মনের আইনজীবী সনদ বৈধ, ব্যারিস্টার সুমন-ইশরাতের জরিমানা ! বাগেরহাট জেলায় কৃষি বিভাগের সেবা নিয়ে সেবাদাতা ও গ্রহীতাদের মুখোমুখি সভা।

আটকের কয়েক ঘণ্টা পর ছেড়ে দেওয়া হল ভিপি নুরকে

গ্রেফতারের ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই ছেড়ে দেয়া হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরকে। ডিবির যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘নুরকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে’। এর আগে সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৮টার দিকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ধর্ষণের মামলার পাশাপাশি পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগেও তাকে আটক করা হয়। এরপর তাকে নেয়া হয় ডিবি কার্যালয়ে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া ও জনসংযোগ বিভাগের উপকমিশনার মো. ওয়ালিদ হোসেন জানান, আজ সন্ধ্যার দিকে ধর্ষণ মামলার প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিপি নূর ও তাঁর সহযোগীরা শাহবাগ থেকে মৎস্য ভবনের দিকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় তাঁরা পুলিশের কাজে বাধা দেন। পরে মৎস্য ভবন এলাকা থেকে নুরুল হক নূরসহ সাতজনকে পুলিশ গ্রেফতার করে। নুরের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় ধর্ষণ মামলা তো আছেই, সঙ্গে পুলিশের ওপর হামলায়ও তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তবে তার ১০টার দিকে নুরকে দেখা যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে পুলিশের হামলায় আহত পরিষদের নেতা-কর্মীরা চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

তখন জানতে চাইলে মহানগর পুলিশ কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম জানান, “নুরকে আটকই করা হয়নি। অনুমতি ছাড়া মিছিল করায় তাকে নিয়ে বসিয়ে রাখা হয়েছিল। পরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।”

এর আগে রোববার রাতে নুরুল হকসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্রী লালবাগ থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার এক নম্বর আসামি ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares