September 18, 2020, 10:37 am

শিরোনাম
বাগেরহাট জেলার ২০২১ সালে রাজস্ব আদায়ে রেকর্ড ছাড়াবে মোংলা বন্দর। মোঃ জহির উদ্দিন সাইক্লিং করে পিরোজপুর। পিরোজপুর পৌর যুবলীগের ৩নং ওয়ার্ড কার্যালয় পুড়িয়ে দিলেন সন্ত্রাসীরা। বিমানের ফ্লাইট স্থগিতের মেয়াদ আরেক দফা বাড়িয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাগেরহাটে গুরজিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসায় টাকা না দিলে মিলছে না প্রশংসাপত্র। ধর্ষণ শেষে হত্যার ৪৫ দিন পর সেই স্কুল ছাত্রী থানায় হাজির প্রেমের ফাঁদে ফেলে গোপনে বিয়ে অতঃপর যৌতুকের জন্য চাপ, যৌতুক না দেয়াতে তালাক। সাউথ আফ্রিকার,ডারবানে একটি মসজিদে আগুন মোংলা অনলাইন প্রেস ক্লাবের সাথে একাত্নতা প্রকাশ উপজেলা চেয়ারম্যান হাওলাদার আবু তাহের। বাগেরহাট জেলার খাল থেকে ৪২ কেজি হরিনের মাংস, হরিন শিকারের ফাঁদ’সহ নৌকা জব্দ।

বাগেরহাটে গুরজিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসায় টাকা না দিলে মিলছে না প্রশংসাপত্র।

রাজু চৌধুরী, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ

বাগেরহাট জেলার মোড়েলগন্জ উপজেলার গুরজিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসায় টাকা না দিলে মিলছে না ছাত্র – ছাত্রীদের কলেজের ভর্তি হওয়ার প্রশংসাপত্র। জানা যায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং কেরানী এর কাছ থেকে বিদ্যালয়ের প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র নিতে গেলেও গুনতে হয় মোটা অংকের টাকা।

বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, টাকা না দিলে কোন রকমের সহায়তা দেয়না বিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ। ২০১৯ – ২০২০ বর্ষের শিক্ষার্থীরা অন্য প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আনতে গেলে বিদ্যালয় থেকে দাবি করেন মোটা অংকের টাকা। কোনো কোনো শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নেওয়া হয়েছে ৬০০ টাকা থেকে শুরু করে ১২০০টাকা পর্যন্ত হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। তাছাড়াও জানা গেছে এসএসসি পরীক্ষারর সময় শিক্ষার্থীদের থেকে এডমিট প্রবেশপত্র রেখে দেওয়া হয়, পরবর্তীতে প্রশংসাপত্র নিতে গেলে দিতে হয় মোটা অংকের টাকা।

তবে সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী রাজু চৌধুরী এ বিষয়ে উপজেলার নিবার্হী অফিসারের কাছে জানতে চাইলে বলেন প্রয়োজনীয় সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে প্রধান শিক্ষকদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়া হবে। তবে এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চাইলে তিনি এর সঠিক উওর দিতে পারেননি। উক্ত মাদ্রসার সভাপতি এবং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি খতিয়ে দেখার কথা জানান, এবং অভিযোগ সত্যতা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়া হবে বলেন।

তাছাড়া বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের নামে নানা ধরনের অভিযোগ অনিয়মের কথা বেরিয়ে এসেছে । বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকমের বিদ্যালয়ের কাগজপত্র নিয়ে বিপুল পরিমানের অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares