March 4, 2021, 9:06 pm

শিরোনাম
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে ইরাক প্রবাসী খোলা চিঠি। টাকার মেশিন এমপি নূর মোহাম্মদের বিকাশ নাম্বার, অজ্ঞাত উৎস থেকে প্রতিদিন ঢুকছে টাকা! বাংলাদেশ থেকে ১২ হাজার কর্মী নেবে সিঙ্গাপুর ও রোমানিয়া কৌশলে রেজিস্ট্রেশন করে টিকা নিচ্ছেন ৪০ বছরের কম বয়সীরাও! বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে ২৪ মে,আবাসিক হল ১৭ মে: শিক্ষামন্ত্রী পিরোজপুরে স্কুল শিক্ষিকার বাসা থেকে গৃহপরিচারিকার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার। “বকুলতলা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে অমর একুশের ভাষা শহিদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ ও পুষ্পস্তবক অর্পণ” ভাষা শহীদদের জন্য বায়তুল মোকাররমে দোয়া ও মোনাজাত বাগেরহাটে গাছে আমের মুকুলে ভরপুর স্বপ্ন বুনছেন চাষিরা। সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি সম্মেলন ২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ইতালিতে বাংলাদেশীদের কারখানায় ব‍্যপক ক্ষতি

করোনা মহামারিতে বিপর্যস্ত বিশ্ব অর্থনীতি। ইতালির বিভিন্ন খাতেও পড়েছে এর নেতিবাচক প্রভাব। যার মধ্যে অন্যতম গার্মেন্টস ও টেইলার্স ব্যবসা। দেশটির ফ্যাশন ও টেক্সটাইল এসোসিয়েশন জানায়, করোনার প্রভাবে পর্যটন খাতে ধস নামার পাশাপাশি গার্মেন্টস পণ্যের বিক্রি কমে গেছে ৫০ থেকে ৬০ শতাংশ। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশে পাঠানো রেমিটেন্সের ওপর।

করোনা মহামারির কারণে ইতালির বন্দরনগরী নেপোলিতে গড়ে ওঠা বাংলাদেশি মালিকানাধীন গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিগুলো ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। দীর্ঘ একযুগেরও বেশি সময় ধরে নেপোলির বিভিন্ন শহরে প্রবাসী বাংলাদেশিরা গড়ে তোলেন এসব কারখানা। দীর্ঘদিন ধরে এই শিল্প থেকে বাংলাদেশে বিপুল পরিমাণ রেমিটেন্স পাঠানো সম্ভব হলেও এখন সেখানে চলছে হাহাকার।

গার্মেন্টস ব্যবসায়ীরা জানান, বাংলাদেশ সরকারের সহায়তা পেলে আবারও ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশি মালাকানাধীন প্রায় এক হাজার গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি।

২০০৩ সাল থেকে নেপোলিতে গার্মেন্টস ব্যবসার সঙ্গে জড়িত প্রবাসী বাংলাদেশিরা। বর্তমানে বাংলাদেশি মালিকানাধীন গার্মেন্টসগুলোতে কাজ করেন প্রায় ২৫ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি। ইতালির অর্থনীতিতে বড় ভূমিকা রাখার পাশাপাশি বাংলাদেশেরও রেমিটেন্সেও উল্লেখযোগ্য অবদান রাখছে এসব গার্মেন্টস কারখানা।

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares