August 2, 2021, 10:05 am

শিরোনাম
শোকের মাসে সৌদি প্রবাসীদের দূতাবাসের বিশেষ সেবা প্রদান করা হবে- রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদ থেকে, সামাজিক সংগঠন এমিনেন্ট বয়েজ কে কাভিট ইকুপমেন্ট প্রদান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরের জন্য ঘুষ না দেওয়ায় মারপিট! ইন্দুরকানীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের -২৭ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত! ছাত্রদল নেতা সিরাজ এখনো বয়ে বেড়ান তার সেই ভয়াবহ গুলির স্মৃতি পিরোজপুর সদরে ভূইফোঁড় সাংবাদিক ও মানবাধিকার নেতার ছড়াছড়ি। বহুরূপী হেলেনা জাহাঙ্গীর এর নতুন রাজনৈতিক দোকান আওয়ামী চাকুরিজীবী লীগ। পিরোজপুরে দলীয় বিদ্রোহীদের প্রভাবে দিশেহারা আ’লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীরা ফের বিয়ে করেছেন রেলমন্ত্রী, পাত্রী দিনাজপুরের মেয়ে সেভ দ্যা ফিউচার ফাউণ্ডেশন পিরোজপুর জেলা কমিটির কেন্দ্রের অনুমোদন

সুদান প্রবাসী জসিমের সততার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত !

ইমাম হাসান : প্রবাসে কঠোর পরিশ্রম করে দেশের নাম উজ্জ্বল করার পাশাপাশি সততার মাধ্যমেও অনেকেই বাংলাদেশকে পরিচিত করেছেন বিশ্বের কাছে।ঠিক এমনই একজনসুদান প্রবাসী বাংলাদেশী মোঃ জসিম।

আজ বিকেলে বাসে করে ছালামা বাকালা থেকে আফরা আসার পথে জসিমের সাথে বসা এক সুদানি ভদ্রলোক বাসের ভিতর ব্যাগ রেখে বাস থেকে নেমে পড়েন।নেমে যাওয়ার পর জসিম দেখলেন তার পায়ের কাছে একটি কালো ব্যাগ পড়ে আছে।তখন তিনি বুঝতে পারলেন ব্যাগটি সুদানি’র যিনি তার পাশে বসা ছিলেন।উনি ব্যাগটি নিয়ে সাথে সাথে গাড়ি থেকে নেমে পড়েন এবং অনেক খুঁজা খুঁজি করেন লোকটি কে।পরবর্তীতে না পেয়ে ব্যাগটি খুলে দেখে অবাক হয়ে যান,কারন পুরো ব্যাগ ভর্তি টাকা ছিল, কিনতু জসিম ওই টাকা ছুঁয়ে ও দেখেনি।কাউকে কিছু না বলে সোজা থানায় চলে যায় এবং পুলিশ কে সব ঘটনা খুলে বলে।

তার মুখের দিকে তাকিয়ে থানার সকল পুলিশ অফিসার এক এক করে জড়ো হতে লাগলো।সকলের সামনে ব্যাগটি দায়িত্বরত পুলিশ অফিসার আহম্মদ আবদেল সালেহ আল কাসামি খুলে দেখেন ব্যাগটির ভিতরে সুদানি দুই লাখ এিশ হাজার পাউন্ড রয়েছে।সাথে কিছু কাগজ পএ ছিলো সেখান থেকে যোগাযোগ করে টাকার মালিক কে জানানো হয়।

ঘন্টা খানেক পর টাকার মালিক এসে জসিম কে বুকে জড়িয়ে ধরে জোর পূর্বক বিশ হাজার টাকা বকশিস দেয়,টাকাটি নিয়ে জসিম সাথে সাথে পুলিশের হাতে তুলে দিয়ে বলে ঈদে গরিব মানুষের মাঝে বিলিয়ে দিতে।

ঘটনা জানাজানি হয়ে যাওয়ায় সুদানিদের ভিড় বেড়ে যায় এবং সকল সুদানি জসিম এবং বাংলাদেশের মানুষের জন্য দোয়া করেন।

তার এই সততার দৃষ্টান্ত বাংলাদেশ কমিউনিটি পর্যন্ত জেনে যায়,পরে জসিমকে বাংলাদেশ কমিউনিটির সকলে সাধুবাদ জানায়।

জসিম একজন লন্ড্রি ব্যবসায়ী তার দুইটি দোকান রয়েছে একটি সালামা বাকালা আরেকটি মুজামমা।জসিম দীর্ঘ ১২ বৎসর যাবৎ সুদান আছেন।সকলের কাছে তিনি দোয়া চেয়েছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares