May 16, 2021, 1:01 pm

শিরোনাম
পিরোজপুরে অসহায় কর্মহীন মানুষের পাশে “ফ্রেন্ডস’ ৯৭ পিরোজপুর” লকডাউন বাড়ছে ১৬ মে পর্যন্ত, এক জেলা থেকে আরেক জেলায় গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। প্রবাসী আয়ে ঢল, রিজার্ভ বেড়ে ৪৫ বিলিয়ন ডলার,এপ্রিলে ২০৬ কোটি ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা । মে মাসের প্রথম দুই দিনে এসেছে ১৫ কোটি ৪০ লাখ ডলার। যত টাকা লাগুক, প্রয়োজনীয় করোনার টিকা আনা হবে: প্রধানমন্ত্রী পিরোজপুর জেলা সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশনের পবিত্র রমজান মাসে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ। পিরোজপুর HDTএর সৌজন্যে সেলাই মেশিন বিতরণ। লকডাউনে পিরোজপুর শহরে মাদকের ভয়াবহতা বেড়ে যাওয়ার অভিযোগ! করোনাকালে অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিলেন পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগ। একসঙ্গে কাজ করবে হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুক মেসেঞ্জার মেয়ের বিরুদ্ধে হত্যার চেষ্টা ও ষড়যন্ত্র মুলক মামলা দায়ের করলো “মা”।

ওমান প্রবাসী বাংলাদেশি ভাই-বোনদের উদ্দেশ্য রাষ্ট্রদূতের জরুরী আহবান

ওমান প্রবাসী বাংলাদেশি ভাই-বোনদের উদ্দেশ্য রাষ্ট্রদূতের জরুরী আহবান !

ওমানে বসবাসরত সকল বাংলাদেশি ভাই-বোনদের জানানো যাচ্ছে যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুঃখজনকভাবে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি ভাই ওমানে অকালে মৃত্যু বরন করেছেন। আমরা তাদের আত্নার মাগফেরাত কামনা করছি এবং তাদের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর দুঃখ প্রকাশ করছি।

এ বিষয়ে আমি ওমানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে কথা বলে জানতে পেরেছি যে বাংলাদেশি ভাই-বোনেরা রোগটির ভয়াবহতা অনেক সময় বুঝতে ভুল করেন এবং সহজে হাসপাতালে যেতে চান না। তাছাড়া অনেক সময় তারা দেরিতে হাসপাতালে যান ফলে তাদের অবস্থা জটিল আকার ধারণ করে। সময়মত হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা গ্রহন করলে শতকরা ৯৮ ভাগেরও বেশী মানুষ সুস্থ হবার সম্ভাবনা থাকে। তাই করোনা ভাইরাসের লক্ষন দেখা দিলে অর্থাৎ জ্বর, কাশি, গলা ব্যাথা, শরীর ব্যাথা বা সামান্যতম শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা হলে এক মুহুর্ত দেরি না করে নিকটস্থ স্বাস্থ্য কেন্দ্র বা সরকারি হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা গ্রহন করবেন। যদি কাছাকাছি কোন সরকারী হাসপাতাল না থাকে তবে নিকটবর্তী বেসরকারি হাসপাতালের জরুরি বিভাগে গিয়ে দেখা করবেন এবং চিকিৎসা গ্রহন করবেন। আপনার আরবাব চিকিৎসা খরচ না দিলে বাংলাদেশ দুতাবাস মাস্কাট ওমান সরকারের মাধ্যমে আরবাবের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবে।

যাদের পতাকা আছে তারা পতাকা দেখিয়ে হাসপাতালে ডাক্তার দেখাবেন এবং ভর্তির প্রয়োজন হলে ভর্তি হবেন। এ ক্ষেত্রে আপনার আরবাব আইন অনুযায়ী সকল খরচ বহন করতে বাধ্য থাকবে। আপনার আরবাব চিকিৎসা খরচ না দিলে বাংলাদেশ দুতাবাস মাস্কাট ওমান সরকারের মাধ্যমে আরবাবের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবে।

যাদের পতাকা নাই অথবা যারা অবৈধ তারাও করোনা ভাইরাসের লক্ষন দেখা দিলে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে দেখা করবেন। ওমানের আইন অনুযায়ী করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা গ্রহন এবং ভর্তির প্রয়োজন হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আপনাদের চিকিৎসা সেবা দিতে বাধ্য থাকবে। যদি কোন হাসপাতাল পতাকা না থাকার কারনে আপনাদের চিকিৎসা না দেয় তবে বাংলাদেশ দুতাবাস মাস্কাট ওমান সরকারের মাধ্যমে সেই হাসপাতালের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবে।

আপনারা সবাই ভালো থাকবেন, মহান আল্লাহ আমাদের সবার সহায় হউন।

মোঃ গোলাম সারোয়ার
রাষ্ট্রদূত
মাস্কাট, ওমান

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares