September 21, 2021, 8:44 am

শিরোনাম
চাকরিজীবীরা একে অপরকে বিয়ে করতে পারবে না,সাংসদ বাবলুর প্রস্তাব বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে ১১-২০ গ্রেডের সরকারি চাকুরিজীবীদের দোয়া ও তাবারক বিতরণ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬- তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া অনুষ্ঠান। পিরোজপুর সদর উপজেলা জেলা সেভ দ্য ফিউচার ফাউন্ডেশন এর পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা শোকের মাসে সৌদি প্রবাসীদের দূতাবাসের বিশেষ সেবা প্রদান করা হবে- রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদ থেকে, সামাজিক সংগঠন এমিনেন্ট বয়েজ কে কাভিট ইকুপমেন্ট প্রদান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরের জন্য ঘুষ না দেওয়ায় মারপিট! ইন্দুরকানীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের -২৭ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত! ছাত্রদল নেতা সিরাজ এখনো বয়ে বেড়ান তার সেই ভয়াবহ গুলির স্মৃতি পিরোজপুর সদরে ভূইফোঁড় সাংবাদিক ও মানবাধিকার নেতার ছড়াছড়ি।

প্রবাসী স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন।

মো : মুজাহিদুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : পারিবারিক বিরোধের জেরে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় প্রবাসী স্বামীর হাতে মাহফুজা খাতুন (৩৫) নামের এক গৃহবধু খুন হয়েছেন। সোমবার (২০ জুলাই) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নের দগদগা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরই ঘাতক স্বামী আবু বাক্কার সিদ্দিক গা ঢাকা দিয়েছে।

নিহত গৃহবধু মাহফুজা ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার বীরইখালপাড় গ্রামের সোহরাব উদ্দিনের মেয়ে। এ ব্যাপারে মঙ্গলবার (২১ জুলাই) সকালে নিহতের পিতা সোহরাব উদ্দিন বাদী হয়ে আবু বাক্কার সিদ্দিককে অভিযুক্ত করে পাকুন্দিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, দগদগা গ্রামের মৃত মুর্শিদ উদ্দিনের ছেলে আবু বাক্কার সিদ্দিকের সঙ্গে প্রায় ১২ বছর আগে পারিবারিক ভাবে মাহফুজা খাতুনের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে জিহাদ (১০) ও জাহিদ (৫) নামের দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

পারিবারিক অভাব অনটনের কারণে আবু বাক্কার সিদ্দিক শ্বশুরবাড়ির সহযোগিতায় আনুমানিক ৬ বছর আগে চাকুরী নিয়ে সৌদিআরব যায়। বিদেশ যাওয়ার পর থেকে স্ত্রীকে ভরণপোষণের খরচ না দেওয়ায় মাহফুজা দুই সন্তান নিয়ে তার পিতার বাড়িতে চলে যান। এ নিয়ে প্রায়ই স্বামীর সাথে মুঠোফোনে মাহফুজার ঝগড়া হতো। একপর্যায়ে দুইজনের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দেয়। গত ১৭ জুলাই আবু বাক্কার সিদ্দিক সৌদিআরব থেকে ছুটি নিয়ে নিজ বাড়িতে আসেন।

পরে দুই পরিবারের লোকজন বসে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সৃষ্ট মতবিরোধ মিমাংসা করে দেন। পরে মা নাজমা খাতুনকে সঙ্গে নিয়ে মাহফুজা স্বামীর বাড়িতে যান। কিন্তু আবু বাক্কারের মনের মধ্যে ছিল অন্য রকম পরিকল্পনা।

পূর্ব বিরোধের জের ধরে সোমবার (২০ জুলাই) রাত সাড়ে ১২টার দিকে আবু বাক্কার সিদ্দিক চাপাতি দিয়ে ঘুমন্ত স্ত্রীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যান। এ সময় মাহফুজার ডাকচিৎকার শুনে মা নাজমা আক্তারসহ বাড়ির অন্যান্য লোকজন এগিয়ে আসলে উপস্থিত সকলের সামনে স্বামী তাকে কুপিয়েছে বলে জানান। এরপরই তিনি মারা যান। খবর পেয়ে মঙ্গলবার (২১ জুলাই) সকালে পাকুন্দিয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। পাকুন্দিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘাতক স্বামীকে ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares