May 16, 2021, 11:37 am

শিরোনাম
পিরোজপুরে অসহায় কর্মহীন মানুষের পাশে “ফ্রেন্ডস’ ৯৭ পিরোজপুর” লকডাউন বাড়ছে ১৬ মে পর্যন্ত, এক জেলা থেকে আরেক জেলায় গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। প্রবাসী আয়ে ঢল, রিজার্ভ বেড়ে ৪৫ বিলিয়ন ডলার,এপ্রিলে ২০৬ কোটি ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা । মে মাসের প্রথম দুই দিনে এসেছে ১৫ কোটি ৪০ লাখ ডলার। যত টাকা লাগুক, প্রয়োজনীয় করোনার টিকা আনা হবে: প্রধানমন্ত্রী পিরোজপুর জেলা সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশনের পবিত্র রমজান মাসে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ। পিরোজপুর HDTএর সৌজন্যে সেলাই মেশিন বিতরণ। লকডাউনে পিরোজপুর শহরে মাদকের ভয়াবহতা বেড়ে যাওয়ার অভিযোগ! করোনাকালে অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিলেন পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগ। একসঙ্গে কাজ করবে হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুক মেসেঞ্জার মেয়ের বিরুদ্ধে হত্যার চেষ্টা ও ষড়যন্ত্র মুলক মামলা দায়ের করলো “মা”।

করোনা ভাইরাসে চাকরি হারিয়ে বিদেশ ফেরতদের ঋণ দিতে ২০০ কোটি টাকার চুক্তি।

অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাসে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিদেশ ফেরত ক্ষতিগ্রস্ত কর্মীদের ২০০ কোটি ঋণ দিতে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের সঙ্গে ওয়েজ অনার্স কল্যাণ বোর্ডের একটি সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। সোমবার প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এ চুক্তি সই হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন। চুক্তি অনুযায়ী ওয়েজ অনার্স কল্যাণ বোর্ড প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংককে ২০০ কোটি টাকা বিনা সুদে ঋণ হিসেবে প্রদান করবে। ব্যাংক ওই তহবিল থেকে চার শতাংশ সরল সুদে গ্রাহকদের বিনিয়োগ ঋণ দেবে। বৈধভাবে বিদেশে যাওয়া কর্মী বা বিদেশ থেকে বৈধভাবে রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন এমন কর্মী ও করোনায় মৃত কর্মীদের পরিবার এই ঋণ পাওয়ার জন্য বিবেচিত হবেন। ঋণ প্রদান ও ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম বিষয়ে প্রণীত নীতিমালা অনুযায়ী সম্পাদিত হবে। দ্রুত, দক্ষ ও স্বচ্ছ ঋণ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম নিশ্চিত করার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় বিভিন্ন অংশীজনকে সংযুক্ত করা হবে। অনুষ্ঠান শেষে মন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী কর্মীদের টেকসই পুনর্বাসনের জন্য স্বল্প ও সরল সুদে এই ঋণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রীর দেয়ার ৫০০ কোটি টাকা দিয়ে আরো ব্যাপক পুনর্বাসন কর্মসূচি নেয়া হবে। এছাড়া বিদেশ থেকে আসা কর্মীদের কল্যাণে সরকার আরো কিছু পুনর্বাসন প্রকল্প হাতে নেয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী কর্মীরা যেন কয়েকজন মিলে গ্রুপ করে ঋণ নিয়ে যৌথ উদ্যোগে লাভবান হতে পারে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। স্বল্প সময়ে এ সমঝোতা চুক্তি হওয়ায় এই কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত সবাইকে ধন্যবাদ জানান ইমরান আহমদ। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব বলেন, করোনাভাইরাস মহামারির এ সময়ে ঋণ দেয়ার কর্মসূচি ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসীদের আশার আলো দেখাবে। সুদের পরিমাণ অত্যন্ত সহনশীল উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই ঋণের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের পাশাপাশি মন্ত্রণালয়ও এই ঋণ কার্যক্রম নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করবে। প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহতাব জাবিন ও ওয়েজ অনার্স কল্যাণ বোর্ডের পক্ষে স্বাক্ষর করেন মহাপরিচালক মো. হামিদুর রহমান। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের চেয়ারম্যান বেগম শামছুন নাহার, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. শামসুল আলম, বোয়েসেল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বাদল, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শহিদুল আলম, এনডিসি।

শেয়ার করুন

© All rights reserved, প্রবাসী ক্লাব ফাউন্ডেশন- The Expat Club Foundation. (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি)।  
Design & Developed By NCB IT
Shares